প্রচ্ছদ

অনলাইন প্রেসক্লাব আছে এবং থাকবে: প্রধান তথ্য কমিশনার

প্রকাশিত হয়েছে : ২:২৯:৩০,অপরাহ্ন ২০ জুন ২০১৮ | সংবাদটি ১৪৭ বার পঠিত

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ বলেছে- ’অনলাইন প্রেসক্লাব আছে এবং থাকবে কারণ ডিজিটাল বাংলাদেশেএটির প্রয়োজন আছে।’
তিনি বলেন, আমরা অনলাইন গণমাধ্যমের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু করেছি। এপর্যন্ত প্রায় দুইহাজার অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে।
মঙ্গলবার (১৯ জুন) সকাল ১০ টায় সিলেট বেতারের সভাকক্ষে তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ বিষয়ে বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশন, বিভাগীয় তথ্য অফিস, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) ও সিলেটের গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান তথ্য কমিশনার আরো বলেন, তথ্য পাওয়া মানুষের মৌলিক অধিকার। এটা আমাদের সংবিধানে নিশ্চিত করা হয়েছে। এক সময় সরকারের বিভিন্ন বিভাগে তথ্য গোপন রাখার একটা প্রবনতা ছিলো এখন আর সেটা নেই। সরকার সকল ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা জবাবদিহিতা, অনিয়ম এবং দূর্নীতি প্রতিরোধে এ আইন করেছে।
বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্রের কার্যক্রমের প্রশংসা করে তিনি বলেন, সিলেট সংস্কৃতির রাজধানী। এই অঞ্চলের সমৃদ্ধ সংস্কৃতি সিলেট বেতার শ্রোতাদের কাছে তোলে ধরছে। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে সিলেট বেতারের ছিলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ক্ষুধা, দারিদ্রমুক্ত ও বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখেছিলেন। তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর সরকার মনে করে কাউকে পিছনে রেখে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন সম্ভব নয়। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে ভিশন ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। ইতিমধ্যে লক্ষ্যমাত্রা অনেকটা অর্জন করা সম্ভব হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের প্রতিটি মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি জনগণের কল্যাণে কাজ করেন সেটা বিশ্বব্যাপি স্বীকৃত।

বাংলাদেশ বেতার সিলেটের আঞ্চলিক পরিচালক মো. ফখরুল আলমের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা তথ্য অফিসের উপ-পরিচালক জুলিয়া যেসমিন মিলি, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আজিজ আহমদ সেলিম, নবনির্বাচিত সভাপতি তাপস দাস পুরকায়স্থ, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, সিলটিভির সম্পাদক আল আজাদ, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও বাসস-এর সিলেট ব্যুরো চিফ মকসুদ আহমদ মকসুদ, ইমজার সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ দেবু, যুগান্তরের স্টাফরির্পোটার আব্দুর রসিদ রেনু, সিলেটের ডাকের বার্তা সম্পাদক সমরেন্দ্র বিশ্বাস সমর প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শেষ প্রান্তে হঠাৎ সাবেক এক সাংবাদিক অনলাইন গণমাধ্যম নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করলে, প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদ বিরক্তবোধ করে বলেন, এখানে মিডিয়ার বিরুদ্ধে মিডিয়ার বক্তব্য শুরু হয়ে গেছে।
পরবর্তিতে তিনি অনলাইন গণমাধ্যমকে জোরালো সমর্থন দিয়ে বলিষ্ট কন্ঠে উচ্চারণ করেন- অনলাইন প্রেসক্লাব আছে এবং থাকবে, ডিজিটাল বাংলাদেশে এটির প্রয়োজন আছে।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বেতার সিলেটের আঞ্চলিক প্রকৌশলী মনোয়ার হোসেন খান, আঞ্চলিক বার্তা নিয়ন্ত্রক দবির আল কাদের, উপ-আঞ্চলিক পরিচালক আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তারিক, মো. আব্দুল হক, উপ-আঞ্চলিক প্রকৌশলী আবুল হাসান মো. ফয়সল, উপ-বার্তা নিয়ন্ত্রক সঞ্জয় সরকার, সহকারি পরিচালক পবিত্র কুমার দাশ, প্রদীপ চন্দ্র দাশ, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, ইকবাল কবির, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগীয় সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়সল, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি হাবিবুর রহমান তালুকদার, সিলেট জেলা প্রতিনিধি ও সিলেট প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য শুয়াইবুল ইসলাম, চ্যানেল আই সিলেটের প্রতিনিধি সাদিকুর রহমাস সাকী, প্রথম আলোর ক্যামেরা জার্নালিস্ট আনিস মাহমুদ, রিপোর্টার মানাউবি সিংহ শুভ, সমকালের ক্যামেরা জার্নালিস্ট ইউসুফ আলী, ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের রিপোর্টার মাধব কর্মকার, ক্যামেরাপার্সন গোপাল বর্ধন, মোহনা টেলিভিশনের ক্যামেরাপার্সন শামীম আহমদ, জনকণ্ঠের রিপোর্টার এমরানুল হক চৌধুরী, সিলেট বেতারের বহিঃপ্রচার প্রতিনিধি এম রহমান ফারুক প্রমুখ।



দেশ-বিদেশের পাঠক

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০