প্রচ্ছদ

স্মিথদের শাস্তিটা বেশি হয়ে গেছে, মনে করছেন ডি ভিলিয়ার্সও

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

টেস্টটা ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেই। এবি ডি ভিলিয়ার্সও খেলেছেন ওই টেস্টে। বল টেম্পারিং কান্ড ঘটিয়ে যে টেস্টের পর নিষিদ্ধ হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার তিন ক্রিকেটার-স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার আর ক্যামেরুন বেনক্রফট। তাদের জন্য বেশ খারাপ লাগছে ডি ভিলিয়ার্সের। তিনি মনে করছেন, শাস্তিটা বেশ কঠোর হয়ে গেছে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চার ম্যাচের ওই টেস্ট সিরিজটা ৩-১ ব্যবধানে জিতে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। দলের জন্য সেটা বেশ আনন্দের হলেও বল টেম্পারিংয়ের ঘটনা অনভিপ্রেত ছিল, মনে করছেন ডি ভিলিয়ার্স, ‘এটা কর্কশ একটা ব্যাপার ছিল। তবে আমার খেলা সেরা সিরিজ ছিল সেটা। কলঙ্কের ঘটনা ঘটেছে, যেটি হওয়া উচিত হয়নি। তবে ক্রিকেটের দিক থেকে দেখলে, আমরা যেভাবে দাপট দেখিয়েছি, দারুণ ছিল।’

বল টেম্পারিং কান্ডের মূল হোতা ছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার। তার বুদ্ধিতেই তরুণ ক্যামেরুন বেনক্রফট কান্ডটি করেন। স্টিভেন স্মিথ সেটা জানলেও প্রতিবাদ করেননি। তবে ঘটনা প্রকাশ হবার পর সবচেয়ে বেশি দুঃখী দেখা গেছে স্মিথকেই। এতটাই ভেঙে পড়েন তিনি, নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপিলের সুযোগ থাকলেও সেটা গ্রহণ করেননি।

ওয়ার্নার আর স্মিথ নিষিদ্ধ হয়েছেন এক বছরের জন্য। বয়স বিবেচনায় বেনক্রফটের নিষেধাজ্ঞা নয় মাসের। এই তিনজনের মধ্যে ডি ভিলিয়ার্সের বেশি খারাপ লাগছে স্মিথের জন্যই। টেস্টের এক নাম্বার এই ব্যাটসম্যানের শাস্তিটা বেশিই হয়ে গেছে, মনে করছেন তিনি, ‘ঘটনাটা খুব বড় হয়ে গেছে। হ্যাঁ, এটা খুব গুরুতর একটা ব্যাপার। তবে এটাকে এমন একটি জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে, ব্যক্তিগতভাবে তারা খুব কষ্ট পেয়েছে। তাদের জন্য আমার খারাপ লাগছে। বিশেষ করে স্মিথের জন্য। তাকে যে শাস্তি দেয়া হয়েছে, সেটা বেশ কঠোর।’