প্রচ্ছদ

নর্থ জোনের সপ্তম উইকেটের পতন

প্রকাশিত হয়েছে : ৪:২৭:৪৪,অপরাহ্ন ১২ এপ্রিল ২০১৮ | সংবাদটি ৫৭ বার পঠিত

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) চতুর্থ রাউন্ডে প্রথম ইনিংসে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের বড় সংগ্রহের জবাবে তৃতীয় দিনে ব্যাট করছে বিসিবি নর্থ জোন।

স্কোর: বিসিবি নর্থ জোন ২৩৮/৭ (৭৪ ওভার)। ব্যাটিং: মুশফিকুর রহিম ৭১ ও তাইজুল ৫।আউট: ফরহাদ রেজা ৪, অারিফুল হক ৪২, ধীমান ঘোষ ৯, সানজামুল ইসলাম ১৪, মিজানুর রহমান ৩২, নাজমুল হোসেন শান্ত (৪৫), জুনায়েদ সিদ্দিক (৭)।

এবাদতের তৃতীয় শিকার ফরহাদ রেজা : দারুণ বোলিং করতে থাকা এবাদত হোসেনের তৃতীয় শিকার হয়েছেন ফরহাদ রেজা। ইনিংসের ৬৮তম ওভারে তার প্রথম বলে মাহমুদউল্লাহর হাতে ধরা পড়েন ফরহাদ রেজা। আউট হওয়ার আগে ২১ বলে ৪ রান করেন ফরহাদ রেজা।

মুশফিকের ফিফটি: প্রথম ইনিংসে সতীর্থদের ব্যর্থতার দিনে ফিফটি করেছেন মুশফিকুর রহিম। ১৪৩ বলে ফিফটি করতে ৩টি চার মারেন জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক।

প্রতিরোধ ভাঙলেন তানবীর: ১২৪ রানেই ৫ উইকেট হারানোর পর ষষ্ঠ উইকেটে প্রতিরোধ গড়েছিলেন মুশফিকুর রহিম ও আরিফুল হক। আরিফুলকে ফিরিয়ে ৮৩ রানের জুটি ভেঙেছেন তানবীর হায়দার। আবু হায়দার রনিকে ক্যাচ দেওয়া আরিফুল করেছেন ৪২ রান। বিসিবি নর্থ জোনের সংগ্রহ তখন ৬ উইকেটে ২০৭।

দ্বিতীয় সেশনেও ওয়ালটনের দাপট: তৃতীয় দিনের প্রথম সেসনের পর দ্বিতীয় সেশনেও দাপট দেখিয়েছেন ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের বোলাররা। এই সেশনে ৩০ ওভারে ৭৫ রান তুলেছে বিসিবি নর্থ জোন, হারিয়েছে ২ উইকেট। চা বিরতিতে নর্থ জোনের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১৭৩ রান। ১২৪ রানেই ৫ উইকেট হারানোর পর ৪৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে বিরতিতে গেছেন মুশফিকুর রহিম ও আরিফুল হক।

এবাদতের দ্বিতীয় শিকার: সানজামুল ইসলামের পর ধীমান ঘোষকেও নিজের শিকারে পরিণত করেছেন এবাদত হোসেন। এলবিডব্লিউ হওয়ার আগে ধীমান করেছেন ৯। তখন ১২৪ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে নর্থ জোন।

এবাদতের প্রথম: সানজামুল ইসলামকে বোল্ড করে ইনিংসে নিজের প্রথম উইকেট নিয়েছেন পেসার এবাদত হোসেন। সানজামুল ১৪ রান করে ফেরার সময় বিসিবি নর্থ জোনের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১০৯।

প্রথম সেশন ওয়ালটনের: প্রথম দুই দিন ব্যাটিংয়ে দাপট দেখানোর পর তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনটা বোলিং দিয়ে নিজেদের করে নিয়েছে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন। এই সেশনে ২৩ ওভারে ৯৮ রান তুলতে ৩ উইকেট হারিয়েছে বিসিবি নর্থ জোন। লাঞ্চ বিরতিতে নর্থ জোনের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৯৮ রান।

মিজানুরকেও ফেরালেন মোশাররফ: এক ওভার আগে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন নাজমুল হোসেন শান্তকে। এক ওভার পর এসে আবার আঘাত হানলেন মোশাররফ হোসেন রুবেল। বাঁহাতি স্পিনারের বলে সাইফ হাসানকে ক্যাচ দিয়েছেন ৩২ রান করা মিজানুর রহমান। বিসিবি নর্থ জোনের সংগ্রহ তখন ৩ উইকেটে ৮৬।

শান্তকে ফেরালেন মোশাররফ: ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনকে দ্বিতীয় সাফল্য এনে দিয়েছেন মোশাররফ হোসেন রুবেল। বাঁহাতি স্পিনারের বলে বোল্ড হয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত (৪৫)। বিসিবি নর্থ জোনের সংগ্রহ তখন ২ উইকেটে ৮৩।

শুরুতেই রনির আঘাত: তৃতীয় দিনের শুরুতেই ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনকে সাফল্য এনে দিয়েছেন আবু হায়দার রনি। দিনের দ্বিতীয় ওভারে নিজের তৃতীয় বলেই জুনায়েদ সিদ্দিককে উইকেটরক্ষক ইরফান শুক্কুরের ক্যাচ বানিয়ে ফেরান বাঁহাতি এই পেসার। ৭ রান করে জুনায়েদ ফেরার সময় বিসিবি নর্থ জোনের সংগ্রহ ১ উইকেটে ১১।

বগুড়ার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে দুই সেঞ্চুরিতে প্রথম ইনিংসে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন তোলে ৫২৯ রান। জবাবে নর্থ জোন দ্বিতীয় দিন শেষে ১ ওভারে কোনো রান যোগ করতে পারেনি, হারায়নি কোনো উইকেটও। জুনায়েদ সিদ্দিক ও মিজানুর রহমান আজ তৃতীয় দিনে ব্যাটিং শুরু করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন ১ম ইনিংস: ৫২৯ (সাইফ ৯৪, সাদমান ১০৭, রকিবুল ০, মার্শাল ১৩২, মাহমুদউল্লাহ ২৬, ইরফান ০, তানবীর ৪৬, মোশাররফ ৮৩*, শরীফ ৭, রনি ৭, এবাদত ১২; আরিফুল ৪/৭৯, শরিফুল ২/৯৬, সানজামুল ২/১২৭, ফরহাদ ১/৬৮)।



দেশ-বিদেশের পাঠক

আর্কাইভ

মে ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« এপ্রিল    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১