প্রচ্ছদ

ঈদের দুই ছবিতে বুবলী

প্রকাশিত হয়েছে : ৬:১৮:২৯,অপরাহ্ন ২৯ আগস্ট ২০১৭ | সংবাদটি ৪২৭ বার পঠিত

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

গেলো বছর রোজার ঈদে দারুণ অভিষেক হয়েছিল চিত্রনায়িকা বুবলীর। তখন তার অভিনীত দুটি ছবি মুক্তি পায়। এক বছরেরও বেশি সময় পর আসছে কোরবানীর ঈদে বুবলীকে ফের দর্শক সিনেমা হলে দেখবেন। ‘রংবাজ’ এবং ‘অহংকার’ শিরোনামের দুটি চলচ্চিত্রে তাকে শাকিব খানের বিপরীতে দেখা যাবে। বুবলী জানান, দুটি চলচ্চিত্রে তার চরিত্র দু’রকম। একটির সাথে আরেকটি চরিত্রের কোনো মিল নেই। যে কারণে পাশাপাশি দুটি হলে যদি ‘রংবাজ’ ও ‘অহংকার’ প্রদর্শিত হয় এবং একই দর্শক পরপর দুটি সিনেমা উপভোগ করেন, তাহলেও এক বুবলীর সাথে আরেক বুবলীর মিল খুঁজে পাওয়া যাবে না। এর আগে যারা এই নায়িকার অভিনীত ‘বসগিরি’ ও ‘শ্যুটার’ দেখেছেন, এর তুলনায় ‘রংবাজ’ ও ‘অহংকার’-এ নতুন এক বুবলীকে দেখতে পাবেন তারা। পাশাপাশি তার সঙ্গে প্রতি সিনেমাতেই আছেন শাকিব খান। তাই ঘুরে ফিরে বারবার আলোচনাতেই আসছেন বুবলী। বিষয়টি নিজের চলার পথে সৌভাগ্য হিসেবেই বিবেচনা করেন তিনি। বুবলী বলেন, ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের এই সময়ের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। আমার সৌভাগ্য যে, শুরু থেকেই তার বিপরীতে অভিনয় করছি। অভিনয়ের যা কিছু সবই তিনি আমাকে শিখিয়ে দিচ্ছেন। আমি শাকিবের প্রতি কৃতজ্ঞ। আর আমাকে নিয়ে যেসব শ্রদ্ধেয় নির্মাতারা কাজ করছেন, তাদের প্রতিও আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ। তবে মনটা ভীষণ খারাপ দুটো কারণে। প্রথমটি হচ্ছে আমাদের চলচ্চিত্রের অভিভাবক নায়করাজ, আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। আমার স্বপ্ন ছিলো তার সঙ্গে একই ফ্রেমে অভিনয় করার। সেই স্বপ্ন অধরাই থেকে গেলো। নায়ক শব্দটি নিজের যথার্থতা খুঁজে পায় রাজ্জাক স্যারের সঙ্গে যুক্ত হয়ে। ‘নায়ক’ আর ‘রাজ’ যেন একে অন্যের পরিপূরক। তাই নায়করাজ রাজ্জাক স্যার আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন যুগের পর যুগ। আর বন্যা কবলিত মানুষদের প্রতি যেন আল্লাহ আরও সহায় হন এই কামনাই করি।’ এদিকে আসছে ঈদে নিজেদের অভিনীত সিনেমার প্রচারণার জন্য এরইমধ্যে শাকিব খান ও বুবলী আরটিভি, এশিয়ান টিভির টক শোতে অংশ নিয়েছেন। উল্লেখ্য, ‘রংবাজ’ প্রথমদিকে নির্দেশনা দেন শামীম আহমেদ রনি। পরবর্তীতে এটি নির্দেশনা দেন মান্নান। অন্যদিকে ‘অহংকার’ নির্মাণ করেছেন শাহাদাৎ হোসেন লিটন।




দেশ-বিদেশের পাঠক

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০