প্রচ্ছদ

রোডমার্চ : মিডিয়া বাবদ খরচ ৭৭,৬৯৯ টাকা গেল কোথায়?

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

শাহিনুর পাশা চৌধুরী। বিগত বিএনপির নেতৃৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের সময়ে জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জ আসন থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন ধানেরশীষ প্রতীকে। বিএনপির প্রতীকে নির্বাচন করলেও তিনি মূলত জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ন-মহাসচিব। ধর্মীয় শিক্ষার পাশাপাশি জেনারেল শিক্ষার কারনে জোটের রাজনীতিতে বেশ কদর তার। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে মায়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর বর্বর নির্যাতনের প্রতিবাদে রোড মার্চ আহ্বান ও শেষ পর্যন্ত যেতে না পারা নিয়ে বেশ বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন তিনি। অভিযোগ উঠেছে রোডমার্চকে পুঁজি করে তিনি প্রচুর অর্থ সংগ্রহ করে আত্মসাৎ করেছেন। অবশ্য তিনি নিজেও তার কর্মীদের দিয়ে এর জবাব দিয়েছেন। আর জবাবে রয়েছে যথেষ্ট গড়মিল। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ রসালো আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে। তাকে নিয়ে পুরো সিলেটজুড়ে চলছে কানাঘুষা।

জানা যায়, হিউম্যানিটি ফর রোহিঙ্গা বাংলাদেশের ব্যানারে ২১ ও ২২ সেপ্টেম্বর সিলেট থেকে টেকনাফ অভিমূখে রোডমার্চ কর্মসূচী দেন এই জমিয়ত নেতা। কর্মসূচীর শুরু থেকেই বিতর্ক চললেও শেষ পর্যন্ত যদি এটি সফলভাবে সম্পন্ন হতো হবেই হয়তো বিতর্ক থেকে বেঁচে যেতেন তিনি। কিন্তু নাটকীয়ভাবে রশীদপুর থেকে ফিরে আসার পর থেকেই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

অভিযোগ উঠেছে অধিকাংশ গাড়িকেই তিনি শেরপুর পর্যন্ত ভাড়া নিয়েছিলেন। এমনকি রোডমার্চে মনিটরিং সেলের যে ট্রাকটি ব্যবহার করা হয় সেই ট্রাক এবং মাইক শেরপুর পর্যন্ত ভাড়া নেয়া হয়েছিল।

সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ এসব বিষয় নিয়ে বৃহষ্পতিবার ফেইসবুকে একটি পোষ্ট দিলে শুরু হয় তোলপাড়। তার পোষ্টের পাল্টা জবাবও দিয়েছেন জমিয়ত নেতা ও রোডমার্চের অন্যতম সমন্বয়ক মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী।

মি. মালিক তার জাববের পোষ্টে যেসব তথ্য দিয়েছেন তাতেও রয়েছে বেশ ফারাক। এর মধ্যে তিনি উল্লেখ করেছেন শুধু মিডিয়া বাবদ নাকি ৭৭ হাজার ৬শত ৯৯ টাকা খরচ হয়েছে। এখন প্রশ্ন উঠছে এই টাকা গেল কোথায়?

যদিও মি. মালিক এই খরচের খাতে দেখিয়েছেন-
#সিলেটে গোল্ডেন সিটি ইন্টারন্যাশনালে সাংবাদিক সম্মেলনে আপ্যায়ন সহ ২৭৮৯৯।
# সাংবাদিক বন্ধুদের সাথে মত বিনিময়ে আপ্যায়ন ৩৪০০।
# ১০ টি জেলা সফর শেষে আপডেট জানাতে সাংবাদিক সম্মেলনে আপ্যায়ন সহ ১৫০০০।
# মিডিয়া সেল ৯৯০০।
# সাংবাদিক বাবত মিডিয়া সেল ২১৫০০।

তবে খোঁজ নিয়ে যানা যায়, যেখানে সংবাদ সম্মেলন করলে প্রেসক্লাব সমূহের নির্ধারিত ফিস দিতে হয় সেখানে মানবতার কথা বলে ফিসই দেয়া হয়নি, সেখানে এত টাকা কিভাবে খরচ হলো।

দেশ-বিদেশের পাঠক

আর্কাইভ

নভেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« অক্টোবর    
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০