প্রচ্ছদ

অতিরিক্ত হাসিতে মৃত্যু ঘটতে পারে যেভাবে

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

শিরোনাম পড়ে চমকে যাওয়াটাই স্বাভাবিক। চিকিৎসকরা যেখানে সুস্থ থাকতে হাসার পরামর্শ দেন, আর সেখানে বলা হচ্ছে হাসির কারণে মৃত্যু! শুনতে অদ্ভুত শোনালেও এমন ঘটনা ঘটা সম্ভব। এমনকি ঘটেছেও এর আগে। অতিরিক্ত হাসতে গিয়ে ১০ জন ব্যক্তির মৃত্যুবরণ করার রেকর্ড আছে।

হাসতে হাসতে যে দশজন মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মধ্যে একজন ছিলেন ড্যামনোয়েন সায়েন-আম। তিনি ছিলেন আইসক্রিমের ট্রাক চালক। তার স্ত্রীর তথ্যমতে, দুই মিনিট টানা হাসার পর তার দম আঁটকে যায়। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। শ্বাসরোধের ফলে সৃষ্ট সমস্যা থেকে তার মৃত্যু ঘটে।হাসি

চিকিৎসা বিজ্ঞান যা বলে
চিকিৎসা বিজ্ঞান মতে একাধিক কারণে হাসতে হাসতে মৃত্যু ঘটে পারে। কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট, ফুসফুস অকেজো হওয়া, হার্নিয়ায় রক্ত সঞ্চালন বন্ধ হয়ে যাওয়া, স্ট্রোক, মস্তিষ্কের সূক্ষ্ম স্নায়ুতে চাপ এবং গেলাস্টিক সেইজারের কারণে হাসতে হাসতে মৃত্যু হতে পারে বলে জানান চিকিৎসকরা।

ক্যাটাপ্ল্যাক্সি নামে একটি শব্দ আছে চিকিৎসা বিজ্ঞানে। ক্যাটাপ্ল্যাক্সিতে মানুষ পুরোপুরি সজ্ঞানে থেকেও মাংসপেশি নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। অতিরিক্ত হাসির কারণে ক্যাটাপ্ল্যাক্সি অ্যাটাক হতে পারে। এর ফলে আক্রান্ত ব্যক্তি বুঝতে পারে যে তার ক্ষতি হচ্ছে, কিন্তু তা বন্ধ করার ক্ষমতা থাকেনা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে মৃত্যু হতে পারে।

এছাড়াও অতিরিক্ত হাসির কারণে ‘সিনকপ’ নামের আরেকটি সমস্যা হতে পারে। এই সমস্যায় ব্যক্তির দীর্ঘ সময়ের উত্তেজনায় হৃৎস্পন্দন অস্বাভাবিক বেড়ে যায়। ফলে কার্বন ডাই অক্সাইড লসের পরিমাণ বেড়ে যায়। এতে হাসতে হাসতে অজ্ঞান হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।