প্রচ্ছদ

অলিম্পিকের মশাল বহন করে ইতিহাস গড়ল রোবট হুবো (ভিডিওসহ)

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

অলিম্পিকের একটি ঐতিহ্য হচ্ছে গ্রিসের অলিম্পিয়া থেকে একটি মশাল নিয়ে অলিম্পিকের আয়োজন করছে যে দেশ সেখানে নিয়ে যাওয়া। ২০১৮ সালে অলিম্পিকের আসর বসবে দক্ষিন কোরিয়ার পিওংচ্যাং-এ। সেখানে এখন মশাল নিয়ে যাওয়ার রিলে দৌড় চলছে।

এ সপ্তাহের শুরুতে হুবো নামের একটি রোবট অলিম্পিকের মশালটি নিয়ে কিছুটা পথ অতিক্রম করে। হুবো মশাল হাতে নিয়ে মাত্র ১৫০ মিটার বা ৫০০ ফুট পথ দৌড়ে গেলেও মশাল-দৌড়ে তার উপস্থিতি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। রোবট হয়েও মানবতার জয়গান গাওয়া অলিম্পিকের মশাল বহন করে ইতিহাস তৈরি করল হুবো। কেএআইএসটি নামের একটি গবেষণা দল হুবো নির্মাণ করেছে।

হুবো হিউম্যানয়েড বা মানুষের মতো কাজ করতে পারে এমন রোবট। মশাল বহনের সময় সে প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় উদ্ধার কাজ কীভাবে চালাতে পারে তার একটি নমুনা দেখায়। এক হাতে মশাল নিয়ে আরেক হাত ব্যবহার করে একটি নিরেট ইটের দেয়াল মুহূর্তের মধ্যে কেটে ফেলে হুবো।

এরপর হুবো ভাঙ্গা দেয়ালের মধ্য দিয়ে অলিম্পক মশালটি বাড়িয়ে ধরলে সেখান থেকে আরেকটি মশাল জ্বালিয়ে নেন হুবোর ‘বাবা’ প্রফেসর ওহ জন-হো-এর হাতে দেয়। ওহ জন-হো কেএআইএসটি গবেষণা দলের পরিচালক।

পিওংচ্যাং অলিম্পিক ২০১৮-এর আয়োজকেরা এটিকে “উদ্ভাবনী ক্ষমতা ও সৃষ্টিশীলতার সংমিশ্রণ” বলে মন্তব্য করেন।

পুরো জিনিসটা মূলত স্টান্টবাজি মনে হলেও, হুবো যে কোরিয়ার প্রথম হুম্যানয়েড রোবট এবং অলিম্পিকের মশাল নিয়ে দৌড়ে যে নতুন ইতিহাস তৈরি করেছে তা অস্বীকার করা যাবে না।হুবো মানুষের বিভিন্ন আচরণ অনুকরণ করতে পারে। রোবটটির শারীরিক গঠন অনেকটা মানুষের মতো। এর হাত রয়েছে দুটো। এটি মিনিটে ৬৫ কদম হাঁটতে পারে। ২০১৮-এর অলিম্পিকে ৮৫টি রোবট আয়োজক কর্মীদের বিভিন্নভাবে সহায়তা করবে। হুবো তাদের মধ্যে একজন।

ভিডিও দেখুনঃ-

দেশ-বিদেশের পাঠক

আর্কাইভ

নভেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« অক্টোবর    
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০