প্রচ্ছদ

টিভি নাটকে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগী মিতু

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৭’ প্রতিযোগিতার প্রথম রানার আপ জারা মিতু। প্রথমবারের মতো টেলিভিশন নাটকে নাম লেখালেন তিনি। তরুণ নির্মাতা তপু খান নির্মিত ‘কোন আলো লাগলো চোখে’ নামে একটি একক নাটকে অভিনয় করেছেন মিতু।

আবু জাহেদ চৌধুরীর গল্প ভাবনায় নাটকটি রচনা করেছেন রুম্মান রশীদ খান। এতে জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বর সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন জারা মিতু।
জারা মিতু বলেন, ‘এর আগে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ও মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছি। কিন্তু টেলিভিশন নাটকে এই প্রথম কাজ করলাম। প্রথম নাটকে কাজ করতে গিয়ে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি- খুব ভালো একটি টিম পেয়েছি। তপু ভাইসহ তার টিমের সদস্যরা খুবই হেল্পফুল ও আন্তরিক। আমি নতুন একজন মানুষ কিন্তু কখনো মনেই হয়নি পরিবারের বাইরে গিয়ে কাজ করছি। অপূর্ব ভাইয়ের সঙ্গে এটি আমার প্রথম কাজ। তিনিও খুব সহজভাবে আমাকে গ্রহণ করেছিলেন। যার জন্য কাজটি করতে কমফোর্ট ফিল করেছি। বুঝতেই পারিনি আমি প্রথম কোনো নাটকে কাজ করছি।’

ছোটবেলা থেকেই মঞ্চনাটকের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন জারা। এরপর বেশ কিছুদিন অভিনয় থেকে দূরে ছিলেন। এ নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী জানতে চাইলে জারা মিতু বলেন, ‘ইতোমধ্যে বেশ কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছি। এছাড়া নাটকে কাজ করার প্রস্তাব তো আসছেই। কিন্তু আমার বর্তমান পরিকল্পনা ছোট পর্দায় কাজ করার। এই মাধ্যমে কাজ করে যখন বোঝতে পারব আমি অভিনয়ের কিছু শিখতে পেরেছিতারপর বড় পর্দায় পা রাখব।’জারা মিতুর অভিনয় প্রসঙ্গে পরিচালক তপু খান বলেন, ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতার প্রথম রানার আপ জারা মিতুর এ নাটকের মাধ্যমে টেলিভিশন নাটকে অভিষেক হতে যাচ্ছে। প্রথম নাটকে ওর অভিনয় আমার ভালো লেগেছে। মেয়েটি অনেক নম্র-ভদ্র। ও অনেক দূর পর্যন্ত যাবে।’

নাটকটির গল্প প্রসঙ্গে তপু খান বলেন, “চলচ্চিত্র কিংবা নাটকের গল্প থেকে মা-বাবার চরিত্র অনেকটা হারিয়ে গিয়েছিল। গল্পের ঘুরপাক ছিল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও নায়ক-নায়িকাকে ঘিরে। কিন্তু ‘কোন আলো লাগলো চোখে’ নাটকে মা-ছেলের সম্পর্ক দেখানো হয়েছে।” এতে মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন গুণী অভিনেত্রী ডলি জহুর। এছাড়াও অভিনয় করেছেন-সালহা নাদিয়া, কাজল সুবর্না, আযাদ, ফিরোজ বাদশাহ, নাজমুলসহ অনেকে। সম্প্রতি নগরীর উত্তরার বিভিন্ন স্থানে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে। খুব শিগগির বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলে নাটকটি প্রচারিত হবে।