প্রচ্ছদ

সংসার টেকাতে প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য চান অপু

প্রকাশিত হয়েছে : ১১:৪৯:০৪,অপরাহ্ন ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ | সংবাদটি ৫৭৯ বার পঠিত

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস এনটিভিকে জানিয়েছেন, স্বামী শাকিব খানের সব বিষয়ে তিনি রাজি আছেন। তালাকানামার পাওয়ার পর তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে নিজের জন্য কিছু সময় চেয়েছিলেন। সময় নিয়েই অপু জানালেন, শাকিবের সঙ্গে সংসার করতে চান। আর এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহায়তা চান তিনি। অপুর বিশ্বাস শাকিব প্রধানমন্ত্রীর কথা ফেলতে পারবেন না।

এনটিভি অনলাইনকে অপু বলেন, ‘আমি কাগজ হাতে পেয়েছি, এখানে যে অভিযোগ রয়েছে, আমি বলব আমি নির্দোষ। আমি সব সময়ই শাকিব খানের সংসার করতে চেয়েছি, এখনও চাই। আমি যা বলছি, যা করছি সবই শাকিবকে পাওয়ার জন্য। আমি শাকিবের সব ধরনের শর্তে রাজি আছি, শুধু সংসারটা আমি করতে চাই। এর আগে আমি যখন চিকিৎসার জন্য কলকাতায় গিয়েছিলাম তখন শাকিব রাগ করেছিলেন, কেন আমি বাচ্চাকে তালা মেরে গিয়েছিলাম। আসলে আমার কাছে সব চাইতে সিকিউর্ড মনে হয়েছিল, তাই বাসায় রেখে গিয়েছিলাম, তা ছাড়া পরের দিন কিন্তু আমি চলেও আসি। সব কিছুর ঊর্ধ্বে আমি সংসার করতে চাই। শাকিবকে আমি ভালোবেসেছি, তাকেই জীবন চিন্তা করেছি। বছরের পর বছর তার সাথে আমি থেকেছি, তার বাসার প্রত্যেকটা জিনিসপত্র আমার নিজের হাতে কেনা। আমি কেমন করে একা থাকব তাকে ছাড়া? আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্য চাই, তিনি যেন আমাদের মিলিয়ে দেন।’

অপুর এই বক্তব্যের পর শাকিবের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তিনি এখন হায়দরাবাদের রামুজি ফিল্ম সিটিতে ‘নোলক’ নামের একটি ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত আছেন। ছবিতে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা ববি। আগামী ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে এই ছবির শুটিং। এরপর শাকিবের দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

গত এপ্রিলে ঢাকাই ছবির নতুন নায়িকা শবনম বুবলীর সঙ্গে শাকিব ঘরোয়া পরিবেশে একটি ছবি তোলেন। ছবিটিতে ‘ফ্যামিলি টাইম’ ক্যাপশন লিখে নিজের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রকাশ করেন বুবলী। এর পরই অপু বিশ্বাসের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটে শাকিব খানের। ছবিটি প্রকাশের পর পরই গণমাধ্যমে দীর্ঘদিন গোপনে থাকা বিয়ে ও সন্তানের বিষয়টি খোলাসা করেন অপু। তখন থেকেই শাকিব বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে অপুর সমালোচনা করছিলেন। দুজনের দ্বন্দ্ব চরমে পৌঁছায় শাকিব খানের তালাকানামা পাঠানোর মধ্য দিয়ে।