প্রচ্ছদ

হানিমুনে কীভাবে সময় কাটাচ্ছেন জহির-সাগরিকা?

সিলেট নিউজ ওয়ার্ল্ড ডটকম

বিয়ে হলো, বিয়ের জমকালো অনুষ্ঠানও হলো, বিয়ের পর মন্দিরে পূজা দেওয়ার পালাও শেষ। এবার হানিমুন। সদ্যবিবাহিত জহির-সাগরিকা মধুচন্দ্রিমার জন্য কোন স্থানকে বেছে নিলেন? কৌতূহলী তাঁদের অনুগামীরা। নেটিজেনদের কৌতূহল দূর করে দিলেন সাগরিকা ঘাতগে স্বয়ং।

সম্প্রতি জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করে সংবাদের শিরোনামে জহির খান। কোথায় হলো বিয়ের অনুষ্ঠান, কারা উপস্থিত ছিলেন, ইত্যাদি প্রভৃতি নানা আলোচনা চলেছে। তারপরই সদ্যবিবাহিত স্ত্রীকে নিয়ে মহারাষ্ট্রের কোলাপুরের অম্বাদেবী মন্দিরে পূজা দিতে যাওয়ার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। যা নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি। মুসলিম ধর্মাবলম্বী জহিরের হিন্দু স্ত্রীর সঙ্গে মন্দিরে পূজা দেওয়া নিয়ে কট্টরপন্থীরা নানা কথা বলেছে। কিন্তু তাতে কী? নিজেদের নতুন জীবন উপভোগ করতেই এখন ব্যস্ত এই তারকা জুটি।

আপাতত নবদম্পতি মালদ্বীপে মজে মধুচন্দ্রিমায়। বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের হানিমুনের ছবি পোস্ট করেছেন তাঁরা। যেখানে সমুদ্র সৈকতে রিল্যাক্স মুডে দেখা যাচ্ছে প্রাক্তন ভারতীয় পেসারকে। ছবিগুলিতে অবশ্য ধরা দিয়েছেন জহির একাই। স্বামীকে ক্যামেরাবন্দি করতেই ব্যস্ত ছিলেন সাগরিকা। গত মাসেই ‘চক দে ইন্ডিয়া’ খ্যাত বলিউড অভিনেত্রী সাগরিকার সঙ্গে সাত পাঁকে বাধা পড়েছেন জহির। রেজিস্ট্রি ম্যারেজ করলেও পরে এলাহি পার্টির আয়োজনও করেছিলেন। যেখানে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের তারকারা। তবে সেসব ভিড় থেকে এখন অনেকটা দূরে পরস্পরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়েছেন তাঁরা। দেশ জুড়ে যখন বিরাট-আনুশকার বিয়ের জল্পনা তুঙ্গে, তখন একান্তে একে অপরের ভালোবাসায় ডুব দিয়েছেন জহির-সাগরিকা।
সূত্র: ইন্টারনেট‌